ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২২ এপ্রিল ২০২১
  1. অগ্নিকাণ্ড
  2. অপরাধী
  3. আইন-আদালত সাজা
  4. আত্মহত্যা
  5. আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  6. আবহাওয়া
  7. ইতিহাসের এই দিনে
  8. ইসলাম
  9. কলামিস্ট
  10. কৃষি
  11. ক্যাম্পাস
  12. খেলাধুলা
  13. খেলার খবর
  14. গণমাধ্যম
  15. জাতীয় সংবাদ

এই প্রথম দেশীয় ব্র্যান্ডের গাড়ি বাজারে আসছে ঈদের পর “বাংলা কার”

বার্তাকক্ষ
এপ্রিল ২২, ২০২১ ৩:৩৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ঈদের পরে বাজারে আসছে দেশীয় ব্র্যান্ডের গাড়ি বাংলা কার

নিউজ ডেস্ক।

আধুনিক সব সুবিধা নিয়ে ঈদের পর বাজারে আসছে দেশীয় ব্র্যান্ডের প্রথম গাড়ি “বাংলা কার” মাত্র ৩০ লাখ টাকা মিলবে ৭ আসনের এই গাড়িটি। এটি বাজারজাত করছে মোশন গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান বাংলা কারস লিমিটেড। যাতে প্রথমবারের মতো লেখা থাকবে মেড ইন বাংলাদেশ।

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ হ্রাসসহ সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী বছরে দেশীয় ব্র্যান্ড বাংলা কার রপ্তানিতে যাবে। প্রাথমিকভাবে ৩০ টি গাড়ি ট্রায়ালে আছে এরই মধ্যে দশটি বিক্রি হয়ে গেছে।

হোসেন গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকির হোসেন বলেন কোটি টাকা খরচ মারসিটিস বিএমডব্লিউ গাড়ি তে একজন গ্রাহক যে সুবিধা পাবেন বাংলা গাড়িতে সে সুবিধা মিলবে মাত্র ৩০ লাখ টাকায়।

গাড়িটির বিশেষ বৈশিষ্ট্যের মধ্যে অন্যতম হলো গাড়িটি পোশাক খাতের মতো মেইড ইন বাংলাদেশ নাম বহন করবে।

দেশকে গাড়ি উৎপাদনে নেতৃত্বে দেবে japan-china ও ভারত প্রথম পর্যায়ে দেশের ৮ বিভাগে থাকছে বাংলা গাড়ির শোরুম তাছাড়া আরও ৩০ টি শোরুম খুলতে যাচ্ছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

ইতিমধ্যে রাজধানীর তেজগাঁও ১৮১-১৮২ নম্বর ঠিকানায় বাংলা করে এর একটি শোরুম চালু করা হয়েছে সেখানে দেশীয় নিজস্ব ব্রান্ডের গাড়ি সাজিয়ে রাখা হয়েছে ২০২১ সালের নতুন মডেলের গাড়িও শোভা পাচ্ছে শোরুমে।

তিনি বলেন বাংলা কারস কারখানা নারায়ণগঞ্জের পঞ্চ বঁটিতে সেখান থেকে ১২ ধরনের গাড়ি বাজারজাত করা হবে এর মধ্যে থাকবে প্রাইভেটকার, ট্রাক, বাস, লরি ট্রাক, পিকাপ উল্লেখযোগ্য।

তবে গাড়ি বিক্রি কার্যক্রম শুরু হলেও আনুষ্ঠানিক যাত্রা এখনো শুরু হয়নি ২৬ মার্চের উদ্বোধন হওয়ার কথা থাকলেও কোভিড পরিস্থিতির কারণে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে সবকিছু ঠিক থাকলে রোজার ঈদের পরপরই আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

জানা গেছে বাংলাদেশের নিজস্ব ব্র্যান্ডের বাংলা গাড়ির নির্মাণের জন্য জাপান ইন্দোনেশিয়া ও চীনের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করছে হোসেন গ্রুপ অফ ইন্ডাস্ট্রিজ। ইশুজু ইঞ্জিন জাপানি বডিতে নির্মিত গাড়িতে লেখা থাকবে মেইড ইন বাংলাদেশ।

এ প্রসঙ্গে এমডি বলেন আমরা দেশীয় ব্র্যান্ড দেশীয় ডিজাইনের গাড়ি মেনুফেকচারিং রে যাচ্ছি ইসুজু জাপানিজ ইঞ্জিল চায়না বডি এবং ইন্দোনেশিয়ার চেসিজ দিয়ে গাড়ি গুলো তৈরি করেছি।

এসব গাড়ি অন্য গাড়ি থেকে ভিন্ন রকমের পর্টন বা মিৎসুবিশি একটা বা দুটি মডেলের গাড়ি তৈরি করতে পারবে কিন্তু বাংলা কারস সব মডেলের গাড়ি তৈরি করতে পারবে। ১৫০০ থেকে ২৫০০ সিসি পর্যন্ত যেটা ক্রেতার চাহিদা সেটা আমরা তৈরি করে দিতে পারব।  আমাদের আট রঙ্গের গাড়ি থাকলেও ক্রেতা যদি অন্য কোন রং পছন্দ করেন আমরা সেটাও দিতে পারব।

দেশের মাটিতে দেশের তৈরি গাড়ি হল বাংলা কার এটা বিদেশী গাড়ি নয় নিজেদের নামে নিজেদের গাড়ি প্রথমবারের মতো আমরা উৎপাদন করছি আগামী বছরের শুরুর মাঝামাঝিতে রপ্তানিতে যাওয়ার চিন্তা করছি।

টয়োটা জাপানি কোম্পানি হাভেল চাইনিজ কোম্পানি কিন্তু বাংলা কার আমাদের দেশীয় কোম্পানির গাড়ি। টাটার মত আমরাও দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করব আমরা এখন ট্রায়াল’ প্রোডাকশনে আছি জুন জুলাইতে আমাদের আরো গাড়ি আসবে পুরো বিশ্ব দেখবে যে মেইড ইন বাংলাদেশ নামে বাংলা কার।

জুনে পিকআপ-ট্রাক নামবে এরপর আমরা লরি ট্রাক বাস সহ ১২ ধরনের গাড়ি নামাবো তাছাড়া ইলেকট্রিক গাড়ি নামবে আগামী বছর psp4 ফোটন গাড়ি প্রগতি মিৎসুবিশি  গাড়ি তৈরি করছে আমাদের নিজেদের গাড়ি দেশের মাটিতে দেশের গাড়ি নির্মাণ হচ্ছে।

গাড়ির এটুজেড ফ্যাসিলিটি বাংলাদেশ থেকে পাবে প্রতি বছর চার থেকে পাঁচ হাজার গাড়ি বাজারজাত করার ইচ্ছা আছে ইলেকট্রিক মোটরসাইকেল ইলেক্ট্রিক ভেহিকেল বড় লরি ট্রাক সিমেন্টসহ যত ধরনের গাড়ি আছে সব গাড়ি উৎপাদন করব তিনি বলেন প্রতিটি বাড়িতে থাকছে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি গ্যারান্টি।

সূত্র দৈনিক যুগান্তর অনলাইন।

প্রিয় পাঠক, ডেইলি খবরের ডটকমে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন khoborernews@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।

x
%d bloggers like this: